Samakal || ৮ নভেম্বর ২০২০

বিপিও খাতের ১৪ কোম্পানির আন্তর্জাতিক জোটে বাংলাদেশের ফিফোটেক

বিজনেস প্রসেস আউটসোর্সিং নির্ভর কাজ করে এশিয়া, ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকার এমন ১৪টি কোম্পানি মিলে গ্লোবাল বিপিও অ্যালায়েন্স (জিবিএ) নামে আন্তর্জাতিক জোট গঠন করেছে। এ জোটের প্রতিনিধিত্ব করছে দেশের বিপিও খাতের কোম্পানি ফিফোটেক। গত বৃহস্পতিবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে ফিফোটেকের প্রধান কার্যালয় থেকে আয়োজিত অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হয়। জিবিএ-তে বাংলাদেশ থেকে ফিফোটেক, জাপানের মাস্টারপিস গ্রুপ ইনক, চীনের বেইজিং ৯৫ টেলিওয়েব ইনফরমেশন কোম্পানি লিমিটেড, কলোম্বিয়ার কলোম্বিয়া আউটসোর্সিং সলিউশনস এসএএস, মালয়েশিয়ার ডে থ্রি বিজনেস সার্ভিসেস এসডিএন বিএইচডি, তিউনিসিয়ার নেক্সাস, রাশিয়া ও ইউক্রেনের টেলিকম এক্সপ্রেস, জার্মানির টিডিএম, ইতালির আইএনজিও এসপিএ, থাইল্যান্ডের নাইস কল কোম্পানি লিমিটেড, মিয়ানমারের মাস্টারপিস গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড, ফিলিপাইনের মাস্টারপিস গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড, বেলজিয়ামের মাল্টিকম ও ইউরোপের আইএনইটেকের মতো ১৪টি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি চুক্তিবদ্ধ হয়েছে।

 

অনুষ্ঠানে ভিডিও বার্তায় বক্তব্য দেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং জিবিএ’র প্রধান নির্বাহী ড্যানিশ গুটেট। অনুষ্ঠানে সরাসরি যুক্ত ছিলেন অ্যাসোসিওর সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ এইচ কাফি, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কল সেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং (বাক্কো) সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ প্রমুখ। ফিফোটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তৌহিদ হোসেন বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কল সেন্টার ও বিপিও খাতের গ্রাহকদেও কেন্দ্রীয়ভাবে নিরবচ্ছিন্ন সেবা দিতে জিবিএ জোট গঠন করা হয়েছে। জিবিএ জোটের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়ে ফিফোটেক বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের বাংলাভাষার গ্রাহকদের বাংলাদেশ থেকে ও হিন্দি ভাষার গ্রাহকদের ভারতের কলকাতা থেকে কল সেন্টার ও ব্যাক অফিস সেবা দেবে। জিবিএ’র সদস্য কোম্পানিগুলো ২৮টি ভাষায় পৃথিবীর নানা প্রান্তে কল সেন্টার ও ব্যাক অফিসের সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহকদেও সেবা দেবে।